মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৪৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
Logo কাজী নাসরিনের প্রার্থীতা ঘোষণা Logo অ্যাডভোকেট আরিফা আক্তার বিথির আনুষ্ঠানিক প্রার্থী ঘোষণা Logo তাহারা কি আই‌নের উ‌র্দ্ধে ? ফ‌রিদুল মোস্তফা Logo কালকিনি (মাদারীপুর) উপজেলার বাঁশগাড়ী ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী খাসেরহাট সৈয়দ আবুল হোসেন স্কুল এন্ড কলেজের প্রাক্তন ছাত্রছাত্রীদের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান -২০২৪ অনুষ্ঠিত Logo মাদারীপুর ৩ আসনের এমপি মোছাম্মৎ তাহমিনা বেগমের আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিমের সাথে ঈদ পরবর্তী সৌজন্য সাক্ষাৎ ও শুভেচ্ছা বিনিময় Logo মাদারীপুরের কালকিনির রমজানপুর ইউনিয়নে “আব্দুর রব তালুকদার -মাহমুদা বেগম ফাউন্ডেশন” এর ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ Logo ঢাকাসহ ৭ অঞ্চলে ৮০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ের আভাস Logo বাড়ি ফিরছে মানুষ, ফাঁকা হচ্ছে ঢাকা Logo গুরুত্বপূর্ণ সীমান্ত শহর হারাল মিয়ানমার জান্তা, বাঁচলো আত্মসমর্পণ করে Logo ব্রাজিলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকায়

নড়াইলে ১ লাখ মোমবাতি জ্বালিয়ে ভাষা শহীদদের স্মরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৪১
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১০:৩৮ পূর্বাহ্ণ

‘অন্ধকার থেকে মু্ক্ত করুক একুশের আলো’—এই স্লোগান নিয়ে প্রতি বছরের ন্যায় এবারো ২১শে ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজের কুড়িরডোব মাঠে ভাষা শহীদদের স্মরণে প্রজ্বালন করা হয়েছে লাখো মোমবাতি। ১৯৯৮ সাল থেকে নড়াইলে একুশের আলো ও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট লাখো মোমবাতি প্রজ্বালনের এ ব্যতিক্রমী আয়োজনের মধ্য দিয়ে ভাষা শহীদদের স্মরণ করে আসছে। 

সূর্যাস্তের সঙ্গে সঙ্গে ২১শের সন্ধ্যায় শুরু হয় লাখ মোমবাতি প্রজ্বালন। শহিদ মিনার, জাতীয় স্মৃতিসৌধ, বাংলা বর্ণমালা, আল্পনাসহ  গ্রাম বাংলার নানা ঐতিহ্য তুলে ধরা হয় প্রদীপ প্রজ্বালনের মধ্য দিয়ে। সন্ধ্যার আগে মোমবাতি প্রজ্বালনে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রায় দুই সহস্রাধিক শিশু-কিশোর অংশগ্রহণ করেন। সন্ধ্যা ঠিক ৬টা ১৫মিনিটে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের শিল্পীরা ‘আমার ভায়ের রক্তে রাঙ্গানো একুশে ফেব্রুয়ারি, আমি কি ভুলিতে পারি’—এই গান পরিবেশনের মধ্য দিয়ে শুরু করে গণসংগীত ও কবিতা পরিবেশন করেন। এর পরই মোমবাতি প্রজ্বালনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন নড়াইলের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আশফাকুল হক চৌধুরী। অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন নড়াইলের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আশফাকুল হক চৌধুরী, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মেহেদী হাসান, নড়াইল পৌরসভার মেয়র আঞ্জুমান আরা, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান মিকু, একুশের আলোর সহসভাপতি অ্যাডভোকেট ওমর ফারুক, সাধারণ সম্পাদক নাট্য ব্যক্তিত্ব কচি খন্দকার, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি মলয় কুন্ড প্রমুখ। নড়াইল পৌরসভার কাউন্সিলর ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব শরফুল আলম লিটু অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন।

জানা যায়, ১৯৯৮ সালের ২১শে ফেব্রুয়ারি থেকে নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজের কুড়িরডোব মাঠে সন্ধ্যায় ভাষা শহীদদের স্মরণে লাখো মোমবাতি জ্বালিয়ে ভাষাশহিদদের স্মরণে ব্যতিক্রমী এ আয়োজনটি শুরু হয়। এ আয়োজন সফল করতে এক মাস আগে থেকেই সাংস্কৃতিক কর্মী, স্বেচ্ছাসেবক ও শ্রমিক কাজ শুরু করেন। তিন শতাধিক পুলিশ ও স্বেচ্ছাসেবক মাঠের চারপার্শ্বের সার্বিক নিরাপত্তা রক্ষা করে থাকেন। প্রতি বছরের মতো এবারো নড়াইলবাসী, ঢাকাসহ নড়াইলের পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন জেলা থেকে কয়েক হাজার দর্শনার্থী উপভোগ করেন এ মনোরম দৃশ্য।


এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

Theme Customized By Theme Park BD