বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ০৯:৫৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
Logo শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে চলতি মাসের শেষে ঢাকা সফরে আসতে পারেন মোদি Logo বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত শ্রীলঙ্কা-নেপাল ম্যাচ, স্বস্তি বাংলাদেশের Logo ভারতের নতুন সেনাপ্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল উপেন্দ্র দ্বিবেদী Logo সৌদি আরবে পৌঁছেছেন ৮২ হাজারের বেশি হজযাত্রী, মৃত্যু ১৫ জনের Logo দোষী সাব্যস্ত বাইডেনের ছেলে, হতে পারে ২৫ বছরের কারাদণ্ড Logo জলবায়ু মোকাবিলায় ‘লোকাল অ্যাডাপটেশন চ্যাম্পিয়নস’ অ্যাওয়ার্ড পেলেন প্রধানমন্ত্রী Logo ইসরায়েলি হামলায় হিজবুল্লাহর জ্যেষ্ঠ কমান্ডার নিহত Logo সকালে যেসব জেলায় ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা Logo ইয়েমেনে নৌকাডুবিতে ৩৮ অভিবাসীর প্রাণহানি, নিখোঁজ ১০০ Logo শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস আজ

পঞ্চগড়ে বিএসএফের সাউন্ড গ্রেনেডে কৃষক আহত হওয়ার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৭৯
আপডেট : সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ১০:০৭ পূর্বাহ্ণ

পঞ্চগড়ের জেলার সদর উপজেলার কাকপাড়া এলাকায় ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের ছোড়া সাউন্ড গ্রেনেডে কৃষক আজিজার রহমান (৪৫) আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

৯৪ বর্মণ বস্তি ক্যাম্পের বিএসএফ সদস্যের ছোড়া সাউন্ড গ্রেনেডে ওই কৃষক আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা। রবিবার দুপুরে উপজেলার সাতমেড়া ইউনিয়নের কাকপাড়া গ্রামের বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের ৪২২ মেইন পিলারের ২৪ সাব পিলার এলাকায় করতোয়া নদীতে এ ঘটনাটি ঘটে। এসময় ওই কৃষক মাথা, মুখ সহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত পান। তিনি ওই ইউনিয়নের তফিদুল ইসলামের ছেলে। কৃষি কাজের পাশাপাশি নদীতে পাথর উত্তোলন করে জীবিকা নির্বাহ করেন তিনি।

পরে স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে ১৮ বিজিবি ব্যাটালিয়নের মীরগড় ক্যাম্পের সদস্যরা সীমান্ত এলাকায় ছুটে যান। এ নিয়ে বিজিবি বিএসএফের সাথে যোগাযোগ করে। রবিবার বিকেলে ক্যাম্প কামান্ডার পর্যায়ের পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। তবে সাউন্ড গ্রেনেড ছোড়ার বিষয়টি অস্বীকার করেছে বিএসএফ।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে সাতমেড়া ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের সদস্য জহিরুল ইসলাম বলেন, রবিবার দুপুরে স্থানীয় কয়েকজন কৃষকের সাথে করতোয়া নদীতে বোরো ধানের চারা রোপন করতে যান। পরে সেখানে ভারতীয় বিএসএফের এক সদস্য বোমা জাতীয় কিছু ছুড়ে মারেন। বিকট শব্দ হয়। এতে আজিজার আহত হন। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করে বাসায় নিয়ে আসা হয়।

আজিজারের ছোট ভাই দিদার আলী বলেন, আমার ভাই করতোয়া নদীতে বোরো ধানের চারা রোপন করতে গিয়েছিলেন। পরে সেখানে বিএসএফের ছোড়া ককটেল বা বোমা জাতীয় কিছুতে তিনি আহত হয়। তবে আমার ভাই বর্তমানে বাসায় আছেন। শঙ্কামুক্ত আছেন। ভাল আছেন।

মীরগড় বিজিবি কোম্পানী কমান্ডার নায়েব সুবেদার শেখ মো মনিরুজ্জামান বলেন, আমরা খবর পেয়ে ওই সীমান্ত এলাকায় যাই। পরে সেখানে স্থানীয়দের কাছে বিষয়টি শুনে প্রতিবাদ জানিয়ে বিএসএফের সাথে পতাকা বৈঠকের আহ্বান করি। বিকেলে সীমান্ত এলাকায় পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে বিএসএফ বিষয়টি অস্বীকার করেছে।


এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

Theme Customized By Theme Park BD