মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০:৪০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
Logo কাজী নাসরিনের প্রার্থীতা ঘোষণা Logo অ্যাডভোকেট আরিফা আক্তার বিথির আনুষ্ঠানিক প্রার্থী ঘোষণা Logo তাহারা কি আই‌নের উ‌র্দ্ধে ? ফ‌রিদুল মোস্তফা Logo কালকিনি (মাদারীপুর) উপজেলার বাঁশগাড়ী ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী খাসেরহাট সৈয়দ আবুল হোসেন স্কুল এন্ড কলেজের প্রাক্তন ছাত্রছাত্রীদের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান -২০২৪ অনুষ্ঠিত Logo মাদারীপুর ৩ আসনের এমপি মোছাম্মৎ তাহমিনা বেগমের আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিমের সাথে ঈদ পরবর্তী সৌজন্য সাক্ষাৎ ও শুভেচ্ছা বিনিময় Logo মাদারীপুরের কালকিনির রমজানপুর ইউনিয়নে “আব্দুর রব তালুকদার -মাহমুদা বেগম ফাউন্ডেশন” এর ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ Logo ঢাকাসহ ৭ অঞ্চলে ৮০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ের আভাস Logo বাড়ি ফিরছে মানুষ, ফাঁকা হচ্ছে ঢাকা Logo গুরুত্বপূর্ণ সীমান্ত শহর হারাল মিয়ানমার জান্তা, বাঁচলো আত্মসমর্পণ করে Logo ব্রাজিলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকায়

মন্ত্রীর অনুষ্ঠানে গণ পকেটমারী

এখনই সময় ডেস্ক / ১৩১
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ৪ আগস্ট, ২০২২, ৪:২৯ অপরাহ্ণ

খুলনার পাইকগাছার কপিলমুনি বধ্যভূমি সৃতিসৌধে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ’র (এমপি) পুষ্পমাল্য অর্পণ অনুষ্ঠানে ব্যাপকভাবে পকেটমারির ঘটনা ঘটেছে। বধ্যভূমি অভ্যন্তরে মঙ্গলবার (০২ জুলাই) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ, খুলনা-৬ (পাইকগাছা-কয়রা) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ আক্তারুজ্জামান বাবু, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মমতাজ বেগম, থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জিয়াউর রহমান, উপজেলা আ.লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আনন্দ মোহন বিশ্বাস, কপিলমুনি আ.লীগ সভাপতি যুগোল কিশোর দে, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন খোকন, ইউপি চেয়ারম্যান কওছার আলী জোয়ার্দার, স্থানীয় সাংবাদিকসহ শত শত মানুষের সামনে কৌশলে ওই গণ পকেটমারির ঘটনা ঘটেছে।

এসময় পকেটমার চক্রের সদস্যরা কপিলমুনি ইউনিয়ন আলীগ সভাপতি যুগোল কিশোর দের পাঞ্জাবির পকেট থেকে ১৮শ’ টাকা, সাংবাদিক তপন পালের প্যান্টের পকেট থেকে ৫ হাজার টাকা, কপিলমুনি ইউপি চেয়ারম্যান কওসার আলী জোয়ার্দারের ৯ হাজার টাকা,কপিলমুনি প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা যুবলীগের প্রভাবশালী নেতা আব্দুর রাজ্জাক রাজুর পকেট থেকে একটি নোকিয়া ব্যান্ডর মোবাইল(বাটন),সাংবাদিক একে আজাদের পকেট থেকে ৮ হাজার টাকা, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি ও পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সমীরণ কুমার সাধুর একটি মোবাইল সহ উপস্থিত বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের পকেট মারি হয়েছে।

ধারণা করা হচ্ছে, মন্ত্রীর আগমনে ভীড়ের বিষয়টিকে পুঁজি করে চক্রটি সংঘবদ্ধ ঘটনাগুলি ঘটিয়েছে।

স্থানীয় সাংবাদিকদের ধারণকৃত একাধিক ছবিতে দেখা যাচ্ছে মন্ত্রীর একেবারেই সামনে দাঁড়িয়ে খাটো প্রকৃতির মধ্য বয়ষ্ক প্যান্ট-শার্ট পরিহিত একটি লোক কপিলমুনি আ.লীগ সভাপতি যুগোল কিশোর দে’র পাঞ্জাবির পকেটে কৌশলে হাত ঢুকিয়ে পকেটমারি করছে। আর তার একেবারেই সামনে দাঁড়িয়ে রয়েছেন পাইকগাছা থানার ওসি জিয়াউর রহমান। এভাবে পর্যায়ক্রমে দাঁড়িয়ে রয়েছেন স্থানীয় সংসদ সদস্যসহ বিভিন্ন স্তরের দলীয় নেতৃবৃন্দ ও নানা শ্রেণি পেশার মানুষ। তবে কেউই ঘটনা ক্ষেয়াল করেননি।

সকলের অগোচরে প্রকাশ্য দিবালোকে সরকারের মন্ত্রী,এমপি ও প্রশাসনের কর্তা ব্যক্তিদের সামনে ঘটে যাওয়া সিরিজ পকেটমারির ঘটনায় স্থানীয় পর্যায়ে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

ভুক্তভোগী কপিলমুনী প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক রাজু জানান, প্রথমে তিনি ভেবেছিলেন তার মোবাইলটি ভীড়ের মাঝে হারিয়ে গিয়েছে। তবে পরবর্তীতে অন্যান্যদের পকেটমারির ঘটনা ও ছবিতে দেখে তিনি নিশ্চিত হয়েছেন তার মোবাইলটিও পকেটমারি হয়েছে।

এ ব্যাপারে পাইকগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জিয়াউর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, সর্বোচ্চ ১৫/২০ মিনিটের মধ্যে ঘটনাটি ঘটেছে। এতো ভিড়ে পকেটমার হয়েছে কেউ বুঝতেই পারেননি। মুখে মাস্ক থাকায় তাৎক্ষণিক ব্যক্তিকে চেনা সম্ভব হয়নি। তবে প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা গেছে, অতি পেশাদার পকেটমারের বাড়ি খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলা এলাকায়। তবে তাকে আটকে পুলিশি তৎপরতা শুরু হয়েছে।

সর্বশেষ এ ঘটনায় ছবি দেখে সংশ্লিষ্ট অপরাধীকে শনাক্ত পূর্বক আইনের আওতায় নেওয়ার জন্য প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভুক্তভোগীসহ স্থানীয়রা।


এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

Theme Customized By Theme Park BD