বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ০৯:২৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
Logo শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে চলতি মাসের শেষে ঢাকা সফরে আসতে পারেন মোদি Logo বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত শ্রীলঙ্কা-নেপাল ম্যাচ, স্বস্তি বাংলাদেশের Logo ভারতের নতুন সেনাপ্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল উপেন্দ্র দ্বিবেদী Logo সৌদি আরবে পৌঁছেছেন ৮২ হাজারের বেশি হজযাত্রী, মৃত্যু ১৫ জনের Logo দোষী সাব্যস্ত বাইডেনের ছেলে, হতে পারে ২৫ বছরের কারাদণ্ড Logo জলবায়ু মোকাবিলায় ‘লোকাল অ্যাডাপটেশন চ্যাম্পিয়নস’ অ্যাওয়ার্ড পেলেন প্রধানমন্ত্রী Logo ইসরায়েলি হামলায় হিজবুল্লাহর জ্যেষ্ঠ কমান্ডার নিহত Logo সকালে যেসব জেলায় ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা Logo ইয়েমেনে নৌকাডুবিতে ৩৮ অভিবাসীর প্রাণহানি, নিখোঁজ ১০০ Logo শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস আজ

মাদারীপুরে ভূমি কর্মকর্তা কবির হোসেন এর বিরুদ্ধে ঘুষ বাণিজ্যের অভিযোগ

সৈয়দ মারুফ ( মাদারীপুর প্রতিনিধি) ) / ৭৮
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২ মে, ২০২৪, ১০:০৫ পূর্বাহ্ণ

মাদারীপুরের ডাসার উপজেলার বালিগ্রাম ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মোঃ কবির হোসেন এর বিরুদ্ধে ঘুষ কেলেঙ্কারি সহ নানা অনিয়ম-দুর্নীতি ও অসদাচরণের অভিযোগ উঠেছে।

রবিবার (২৮ এপ্রিল) ২০২৪ ইং তারিখ সকালে বালিগ্রাম ইউনিয়নের ধুলগ্রাম ভূমি অফিসের সামনে ভূক্তভোগীরা ওই ভূমি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে ভূমি কর্মকর্তার ঘুষ বাণিজ্যে ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন।

এবিষযয়ে একাধিক ভুক্তভোগী পরিবার ও একাধিক সূত্রের তথ্য মতে, উপজেলার বালিগ্রাম ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মোঃ কবির হোসেন যোগদানের পর থেকে তিনি সেবা নিতে আসা লোকজনের কাছ থেকে প্রত্যেকটি নামজারি করার জন্য ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা দাবি করেন।

তিনি এলাকার অসহায় কৃষকের জমি নামজারি ও দাখিলাসহ বিভিন্ন ধরনের কাজ করে দেওয়ার কথা বলে মোটা অংকের অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছেন বলে অভিযোগ করেন ভূক্তভোগীরা।

ভূক্তভুগীরা জানান কবির হোসেন নামজারির টাকা নিয়ে ৭ থেকে ৮ মাস যাবৎ ঘুরাচ্ছেন বলে ভূক্তভোগীদের দাবি।

এতে করে ক্ষিপ্ত হয়ে উপজেলার ধুলগ্রাম ভূমি অফিসের সামনে ভুক্তভোগীরা তাদের টাকা ফেরত চেয়ে সাংবাদিকদের কাছে দাবি জানান।

নামজারি করতে আশা ভুক্তভোগী বালিগ্রাম ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি শাহ আলম মাতুব্বর, বলেন,আজ থেকে ৬-৭ মাস আগে ভূমি কর্মকর্তা কবির হোসেন আমার একটা জমির নামজারি করে দিবে বলে ২০ হাজার টাকা দাবি করেন।

আমি তাকে অনেক অনুরোধ করে ১৮ হাজার টাকায় চুক্তি করে নগদ ১২ হাজার টাকা দেই, এখন পর্যন্ত আমার নামজারি করে দিচ্ছে না। এবং আমার টাকা ফেরত ও দিচ্ছে না। তিনি আরো বলেন,সে সরকারের কোন নিয়ম নীতি তোয়াক্কা করে না। আমি তার বিচার দাবি করছি।

এবিষয়ে বালিগ্রাম ইউনিয়নের দক্ষিণ ধুয়াসার এলাকার নব্বই বছর বয়সী আদেলদ্দিন আকন বলেন, মুই ৬ -৭ মাস আগে মোর জমির নামজারি করতে তসিলদারকে ৭ হাজার টাহা খরচ লাগবে কইছে,মুই ৫ হাজার টাহা দিছি, এহন মোরে খালি ঘুরায় মোর মিউটেশন করিয়া দেয় না। মুই এই কথা কইতে ডাসার উপজেলার বড় স্যারের ধারে যামু।

বালিগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান খান বলেন, আমি শুনেছি তসিলদার অসহায় মানুষের কাছ থেকে জমির নামজারি ও খাজনার দাখিলার জন্য হাজার হাজার টাকা ঘুষ নিয়ে় মানুষকে ঘুরাঘুড়ি করেন।

আমি তসিলদারকে বলেছি এলাকার অসহায় মানুষের কাছ থেকে ঘুষ না নেওয়ার জন্য তার পরেও তসিলদার ঘুষ নেওয়া বন্ধ করেন নাই। আমি তশিলদার কবির হোসেন এর ঘুষ বাণিজ্য ও সেশ্যাচারিতার বিষয়টি ডাসার উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা মিটিং উপস্থাপন করব।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত তহশিলদার মোঃ কবির হোসেন বলেন আমি কারো কাছ থেকে কোনো টাকা নেই না, সবাই আমার নামে মিথ্যা অভিযোগ দিয়েছে।

এতে এলাকার অসহায় কৃষকের জমি নামজারি ও দাখিলাসহ বিভিন্ন ধরনের কাজ করে দেয়ার কথা বলে মোটা অংকের অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছেন বলে অভিযোগ করেন ভূক্তভোগীরা।

বালিগ্রাম ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মোঃ কবির হোসেন এর বিরুদ্ধে ঘুষ কেলেঙ্কারি, নানা অনিয়ম-দুর্নীতি ও অসদাচরণের অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত করে ব্যাবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন ডাসার উপজেলা নির্বাহী অফিসার কানিজ আফরোজ।


এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

Theme Customized By Theme Park BD