শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৯:৫২ পূর্বাহ্ন

যুদ্ধবিরতির তৃতীয় দিনে ১৭ জিম্মিকে মুক্তি দিল হামাস, ছাড়া পেলো ৩৯ ফিলিস্তিনি

আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক / ২০
আপডেট : সোমবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২৩, ৯:৫৯ পূর্বাহ্ণ

যুদ্ধবিরতির তৃতীয় দিন গতকাল রবিবার ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাস ১৭ জিম্মিকে মুক্তি দিয়েছে। এদের মধ্যে ১৩ জন ইসরায়েলি এবং চারজন বিদেশি। এদের মধ্যে চার বছরের এক যুক্তরাষ্ট্র বংশোদ্ভূত ইসরায়েলি শিশু রয়েছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন শিশুটির মুক্তির তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি আশা প্রকাশ করে বলেছেন, আমরা চাই যুদ্ধবিরতি অব্যাহত থাকুক। চারদিনের যুদ্ধবিরতি আজ সোমবার শেষ হওয়ার কথা। গতকালই ৩৯ ফিলিস্তিনিকে ইসরায়েলি কারাগার থেকে মুক্তি দেওয়া হয়। ইসরায়েলের কারাগার কর্তৃপক্ষ গতকাল এই তথ্য নিশ্চিত করে। হামাস রেডক্রসের কাছে ১৩ ইসরায়েলিকে হস্তান্তরের পরই তাদের মুক্তি দেওয়া হয়।

গতকাল হামাস ১৩ ইসরায়েলি এবং চারজন বিদেশিকে রেডক্রসের কাছে হস্তান্তর করার কথা জানিয়েছে। পরে রেডক্রস ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী আইডিএফের কাছে তুলে দেয়। ১৩ জন ইসরায়েলির মধ্যে ১২ জনকে সীমান্ত দিয়ে দেশে পাঠানো হয়। অসুস্থ থাকায় একজনকে হেলিকপ্টারে করে হাসপাতালে নেওয়া হয়। আইডিএফ এবং হামাস উভয় পক্ষই জানিয়েছে যে ৩৯ ফিলিস্তিনিও রবিবার ইসরায়েলি কারাগার থেকে মুক্তি পাচ্ছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন গতকাল হোয়াইট হাউজে এক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন, চার বছরের শিশু আবিগেইল এডান মুক্তি পেয়েছে। দুইদিন আগে সে তার জন্মদিন পালন করেছে। তাকে আমেরিকানদের মতো আমরাও স্বাগত জানাই। তবে প্রেসিডেন্ট বাইডেন এডানের শারীরিক অবস্থা নিয়ে কিছু জানাননি। এদিকে ইসরায়েলি হামলায় শীর্ষস্থানীয় এক সামরিক কমান্ডারসহ চার নেতা নিহতের কথা স্বীকার করেছে হামাস।

এর আগে গত শুক্রবার যুদ্ধবিরতির প্রথম দিনে ২৪ জিম্মিকে মুক্তি দেয় হামাস। এদের মধ্যে ১৩ জন ইসরায়েলি নারী ও শিশু, ১০ জন থাই ও একজন ফিলিপিনো নাগরিক ছিলেন। বিনিময়ে ৩৯ জন ফিলিস্তিনি বন্দিকে মুক্তি দেয় ইসরায়েল। দ্বিতীয় দিন শনিবার ১৩ ইসরায়েলি ও ৪ থাই জিম্মিসহ মোট ১৭ জনকে মুক্তি দিয়েছে হামাস। বিনিময়ে এদিনও ৩৯ ফিলিস্তিনি নারী ও শিশুকে মুক্তি দিয়েছে ইসরায়েল। সমঝোতা অনুসারে, চার দিনের যুদ্ধবিরতিতে মোট ৫০ জন জিম্মিকে মুক্তি দেবে হামাস। বিনিময়ে ১৫০ ফিলিস্তিনি বন্দিকে মুক্তি দেবে ইসরায়েল।

পশ্চিম তীরে আট জনকে হত্যা

হামাসের সঙ্গে চার দিনের যুদ্ধবিরতির মধ্যেই পশ্চিম তীরে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আট ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছে ইসরায়েলের সেনারা। রবিবার ফিলিস্তিনি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা এ তথ্য জানিয়েছেন। ইসরায়েল ও হামাসের যুদ্ধবিরতির তৃতীয় দিনে ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলেছেন, ২৪ ঘণ্টায় পশ্চিম তীরে ইসরায়েলি সেনাদের হাতে অন্তত আটজন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। গতকাল রবিবার সকালে দখলকৃত পশ্চিম তীরে ইসরায়েলি অভিযান অব্যাহত ছিল। ফিলিস্তিনের রেড ক্রিসেন্ট জানিয়েছে, জেনিনে ড্রোন হামলায় এক ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। আরেক ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন নাবলুসের দক্ষিণে ইয়াতমা গ্রামে। ৭ অক্টোবর থেকে এখন পর্যন্ত পশ্চিম তীরে ইসরায়েলি বাহিনীর হাতে অন্তত ২২৯ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে ৫২টি শিশু রয়েছে। গতকাল গাজার মধ্যাঞ্চলে মাঘাজি শরণার্থী শিবিরে এক কৃষককে হত্যা করেছে ইসরায়েলি সেনারা।

ভারত মহাসাগরে ইসরায়েলি জাহাজে হামলা

ভারত মহাসাগরে ইসরায়েলের মালিকানাধীন একটি মালবাহী জাহাজে ড্রোন হামলার ঘটনা ঘটেছে। হামলার পরপরই জাহাজটিতে আগুন ধরে যায়। তবে এ ঘটনায় হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি। শনিবার নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক মার্কিন প্রতিরক্ষা কর্মকর্তার বরাতে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এপি। প্যান-আরব স্যাটেলাইট চ্যানেল আল-মায়াদিনও ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছে। ওই মার্কিন কর্মকর্তার দাবি, শুক্রবার ইরানের তৈরি শাহেদ-১৩৬ ড্রোন ব্যবহার করে হামলাটি চালানো হয়েছে। হামলার সঙ্গে ইরানের যোগসূত্রের কোনো প্রমাণ না দিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছি।’


এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

Theme Customized By Theme Park BD