বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ১০:৩৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
Logo শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে চলতি মাসের শেষে ঢাকা সফরে আসতে পারেন মোদি Logo বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত শ্রীলঙ্কা-নেপাল ম্যাচ, স্বস্তি বাংলাদেশের Logo ভারতের নতুন সেনাপ্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল উপেন্দ্র দ্বিবেদী Logo সৌদি আরবে পৌঁছেছেন ৮২ হাজারের বেশি হজযাত্রী, মৃত্যু ১৫ জনের Logo দোষী সাব্যস্ত বাইডেনের ছেলে, হতে পারে ২৫ বছরের কারাদণ্ড Logo জলবায়ু মোকাবিলায় ‘লোকাল অ্যাডাপটেশন চ্যাম্পিয়নস’ অ্যাওয়ার্ড পেলেন প্রধানমন্ত্রী Logo ইসরায়েলি হামলায় হিজবুল্লাহর জ্যেষ্ঠ কমান্ডার নিহত Logo সকালে যেসব জেলায় ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা Logo ইয়েমেনে নৌকাডুবিতে ৩৮ অভিবাসীর প্রাণহানি, নিখোঁজ ১০০ Logo শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস আজ

শেরপুরে বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবসে র‍্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত  

আরএম সেলিম শাহী, শেরপুর প্রতিনিধি। / ২০৬
আপডেট : শুক্রবার, ৮ এপ্রিল, ২০২২, ২:১৯ অপরাহ্ণ

সুরক্ষিত বিশ্ব, নিশ্চিত স্বাস্থ্য’ এ প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে নানা আয়োজনে শেরপুরে বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস উদযাপিত হয়েছে। এ উপলক্ষে ৭ এপ্রিল বৃহস্পতিবার সকালে জেলা সিভিল সার্জন অফিসের সামনে থেকে এক বর্ণাঢ্য র‍্যালি বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে।
পরে সিভিল সার্জন অফিসের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মো. মোমিনুর রশীদ।
সিভিল সার্জন ডা. অনুপম ভট্টাচার্য্যের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মো. হাসান নাহিদ চৌধুরী, জেলা সদর হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. মো. জসিম উদ্দিন, জেলা জেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপপরিচালক রায়হানুল ইসলাম, সদর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোবারক হোসেন, বাংলাদেশ মেডিকেল এ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ), শেরপুর জেলা শাখার সভাপতি ডা. এমএ বারেক তোতা, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ), শেরপুর জেলা শাখার সভাপতি ডা. এটিএম মামুন জোশ, জেলা বিএমএ ও স্বাচিপের সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. নাদিম হাসান। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডা. নাহিদ কামাল কেয়া।
অনুষ্ঠানে সিভিল সার্জন অফিসের অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।
আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মো. মোমিনুর রশীদ বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর টার্গেট সবার জন্য সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করা এবং জনগণের সেবাদানের লক্ষে বর্তমান সরকার কমিউনিটি ক্লিনিক করে দিয়েছে। যাতে সকল জনগণ এমবিবিএস ডাক্তার দ্বারা স্বাস্থ্য সেবা পায়। সে ক্ষেত্রে সরকার স্বাস্থ্য বিভাগকে উন্নত করতে অসংখ্য ডাক্তার নিয়োগ দিচ্ছেন এবং অনেক ডাক্তার নিয়োগ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। স্বাস্থ্যসেবার সাথে যারা জড়িত আছে এবং তার সাথে সেবাদাতা হিসেবে যারা আছে তাদের অনেক দায়দায়িত্ব আছে। অনেক সময় দেখি যে অনেক ডাক্তার আছে অর্থ কিভাবে উপার্জন করা যায়। তাই ডাক্তারের উদ্দেশ্যে বলির শিকার হয় অসহায় রোগীরা। রোগীদের কিভাবে অল্প টাকায় চিকিৎসা সেবা ও ভালো চিকিৎসা দেয়া যায়। এদিকে আমাদের সকল ডাক্তাদের সৃষ্টি রাখতে হবে। ডাক্তার যদি রোগীর অপারেশন ও রোগীকে ভুল চিকিৎসা করা থেকে সজাগ সৃষ্টি রাখতে হবে। যারা স্বাস্থ্য বিভাগে দায়িত্বে আছে তাদের সঠিক সেবামান নিশ্চিত করতে হবে। তাহলে যে কোন রোগী তাদের সেবার মান ভালো পাবে।
তিনি আরো বলেন, কাফনের কিন্তু পকেট নাই, করোনা সময় আমরা দেখেছি অনেক মানুষ এবং অনেক ডাক্তার করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরণ করেছে তারা কিন্তু কিছু নিয়ে যেতে পারে নাই। তাই আমরা যে যার পেশাই নিয়োজিত সেখান থেকে আমাদের অসহায় ও গরীব মানুষের সেবা করতে হবে। আমাদের ২০৩০ সালের মধ্যে এডিপি অর্জন করতে হবে এবং স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে সবার জন্য সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করতে হবে। এক্ষেত্রে ২০৪১ সালে আমরা উন্নত দেশ উদযাপন করবো এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে টার্গেট আমাদের দিয়েছে তা পূরণ করতে হবে। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্য সেবা দৌরগোড়ায় পৌঁছে দিতে কাজ করে যাচ্ছে। তাই স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করে সুখী ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তুলতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।


এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

Theme Customized By Theme Park BD