বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৪৫ অপরাহ্ন

গম ভুট্টা ইনস্টিটিউট”র নতুন মহাপরিচালক ড.আমিরুজ্জামান

এখনই সময় ডেস্ক / ৩২
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ৮ জুলাই, ২০২১, ৭:১৯ পূর্বাহ্ণ

 

মাগুরা থেকে মোঃসাইফুল্লাহ ; বাংলাদেশ গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউট এর মহাপরিচালকের দায়িত্ব পেয়েছেন মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার তাঁরাউজিয়াল গ্রামের কৃতি সন্তান খ্যাতিনামা কৃষি বিজ্ঞানী ডঃ আমিরুজ্জামান। দেশের জ্যেষ্ঠ ভুট্টা প্রজননবিদদের মধ্যে তিনি অন্যতম।

 

অতি সম্প্রতি কৃষি মন্ত্রণালয়ের অফিস আদেশ বলে “বাংলাদেশ গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউট” (বাগভুগই), দিনাজপুর এ তিনি  যোগদান করেন।

২০১৭ সালে ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠার পর তিনি ৪র্থ মহাপরিচালক হিসেবে উক্ত পদে যোগদান করলেন।

 

বর্তমান পদে যোগদানের পূর্বে অত্র প্রতিষ্ঠানের পরিকল্পনা, প্রশিক্ষণ ও প্রযুক্তি হস্তান্তর উইং এ পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

 

ড. মোঃ আমিরুজ্জামান ১৯৬২ সালে মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার তারাউজিয়াল গ্রামের মুন্সিপাড়ায় সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি শ্রীপুরের আমতৈল হাইস্কুল থেকে ১৯৭৮ সালে কৃতিত্বের সাথে এসএসসি এবং ১৯৮০ সালে ঢাকা কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করেন।

আমিরুজ্জামান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, সালনা, গাজীপুর থেকে জেনেটিক্স এন্ড প্লান্ট ব্রিডিং বিষয়ে কৃষিতে মাস্টার্স এবং বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ময়মনসিংহ থেকে “গুণগত প্রোটিন সমৃদ্ধ হাইব্রিড ভুট্টা উদ্ভাবন” এর উপর গবেষণা করে জেনেটিক্স এন্ড প্লান্ট ব্রিডিং বিষয়ে পিএইচডি ডিগ্রী লাভ করেন। দেশী ও বিদেশী স্বনামধন্য বিভিন্ন জার্নালে তার ৫০টির অধিক গবেষণা প্রকাশনা রয়েছে। তিনি বিভিন্ন দেশে উচ্চতর প্রশিক্ষণ, সেমিনার, সিম্পোজিয়াম, ওয়ার্কশপে অংশ নেন। ড. জামানের স্বপ্ন হলো জলবায়ুর পরিবর্তন জনিত বিভিন্ন প্রতিকূলতা সহনীয় উচ্চ ফলনশীল হাইব্রিড ভুট্টা ও গমের জাত উদ্ভাবনে এবং দেশের চাহিদানুযায়ী দেশেই ভুট্টার হাইব্রিড ও গমের প্রজনন বীজ উৎপাদনে সক্রিয় ভূমিকা রাখা, যাতে কৃষকেরা কম মূল্যে দেশে উৎপাদিত ভুট্টা ও গমের বীজ ক্রয় ও আবাদ করে লাভবান হোন এবং দেশের প্রতিকূল এলাকায় এদের আবাদ সম্প্রসারণ ও উৎপাদন বৃদ্ধি পায়।

ড. জামানের গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউটে মহাপরিচালক হিসেবে যোগদান দিনাজপুরে এ নবীন প্রতিষ্ঠানের গম ও ভুট্টার নতুন নতুন জাত উদ্ভাবনের গবেষণা, বীজ উৎপাদন ও সম্প্রসারণ কাজে গতি বৃদ্ধি করবে বলে আশা করা যায়। মাগুরাসহ অত্র অঞ্চলে এবং সাথে সাথে সারা দেশের কৃষকেরাও নতুন উদ্ভাবিত উচ্চ ফলনশীল জাত আবাদ করে লাভবান হবেন এবং দেশে গম ও ভুট্টার আবাদ ও উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে। ধানের পরেই গম ও ভুট্টা দেশের খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। বর্তমান কৃষি বান্ধব সরকার এ দুটি দানাদার ফসলের উৎপাদন বৃদ্ধির উপর গুরুত্ব দিয়েছে, বিশেষ করে সারা দেশে ভুট্টার আবাদ ও উৎপাদন বৃদ্ধির উপর বর্তমান কৃষি মন্ত্রীসহ মন্ত্রণালয় বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছেন। দিনাজপুরের এ প্রতিষ্ঠানে ডঃ আমিরুজ্জামান মহাপরিচালক হিসেবে যোগদানে গবেষণা, বীজ উৎপাদন ও সম্প্রসারণ কাজে গতি আরো বৃদ্ধি পাবে বলে মনে করছেন দেশের সচেতন মহল ।


আপনার মতামত লিখুন :

Comments are closed.

এ জাতীয় আরও খবর
Theme Customized By Theme Park BD
x
%d bloggers like this:
x
%d bloggers like this: