রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৪:২০ অপরাহ্ন

সুবর্ণা মুস্তাফা র অভিনয় জীবন

এখনই সময় ডেস্ক / ২৬
আপডেট : বুধবার, ৬ অক্টোবর, ২০২১, ৮:০২ পূর্বাহ্ণ

পরিচিতি প্রতিবেদন-

বরিশাল বিভাগের আলোকিত কৃর্তি সন্তান, বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সদস্য, চলচ্চিত্র ও নাটকের জননন্দিত সফল অভিনেত্রী, নির্মাতা ও উপস্থাপিকা জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত, দেশবরেণ্য মেধাবী গুনি অভিনেত্রী, দেশের মঞ্চনাটকের প্রথিতযশা অভিনেত্রী, দেশবরেণ্য অন্যতম খ্যাতিমান বিশিষ্ট অভিনেতা গোলাম মোস্তফা’র সুযোগ্য সন্তান,
———- অভিনেত্রী সুর্বনা মোস্তফা

সূর্বনা মুস্তাফা ১৯৫৯ সালের ২ ডিসেম্বর ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেছিলেন। তাহাদের পৈত্রিক নিবাস বরিশালের ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলার দপদপিয়া ইউনিয়নে। তার পিতা গোলাম মুস্তাফা ছিলেন একজন প্রখ্যাত অভিনেতা ও আবৃত্তিকার ও তার মাতা হোসনে আরা পাকিস্তান রেডিওতে প্রযোজনার দায়িত্বে ছিলেন।

সূর্বনা মোস্তফা মায়ের সহায়তায় মাত্র ৫/৬ বছর বয়সে বেতার নাটকে কাজ করেন। নবম শ্রেণীতে পড়াকালীন তিনি প্রথম টেলিভিশন নাটকে অভিনয় করেন। ১৯৭১ সালের পূর্ব পর্যন্ত তিনি শিশুশিল্পী হিসেবে নিয়মিত টেলিভিশনে কাজ করেছেন।
১৯৭০-এর দশকে সুবর্ণা ঢাকা থিয়েটারে নাট্যকার সেলিম আল দীনের নাটক জন্ডিস ও বিবিধ বেলুন-এ অভিনয় করেন। ১৯৮০ সালে সৈয়দ সালাউদ্দিন জাকী পরিচালিত ঘুড্ডি ছবির মাধ্যমে তিনি চলচ্চিত্র জগতে আসেন। বিবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি ছবিটিকে “সময়ের আগে নির্মিত একটি ছবি, অ্যাহেড অব ইটস টাইম” বলে উল্লেখ করেন।[৪] ১৯৮৩ সালে নতুন বউ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন। নয়নের আলো (১৯৮৪) ছবিতে তার অভিনয় সব শ্রেণীর দর্শককে নাড়া দিয়েছিল।

সুর্বনা মোস্তফা, আজাদ আবুল কালাম রচিত ও আফসানা মিমি এবং বদরুল আনাম সৌদ পরিচালিত ডলস হাউজ টেলিভিশন ধারাবাহিকে অভিনয় করেন। এটি সৌদ পরিচালিত ও সুবর্ণা অভিনীত প্রথম ধারাবাহিক। পরবর্তী কালে তিনি সৌদের পরিচালনায় সীমান্ত, উপসংহার, গহীনে, গ্রন্থিকগণ কহে, এলেবেলে, কোমল বিবির অতিথিশালা ও কানা সিরাজউদ্দৌলা, পিঞ্জর, ঘোড়ার চাল আড়াই ঘর, অন্তর্যাত্রা টেলিভিশন ধারাবাহিকে অভিনয় করেন।

সুর্বনা মোস্তফা ২০১৮ সালে বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে বিটিভির বিশেষ অনুষ্ঠান আনে মুক্তি আলো আনে উপস্থাপনা করেন এবং চয়নিকা চৌধুরীর পরিচালনায় বিশেষ টেলিভিশন নাটক অপেক্ষা-এ অভিনয় করেন।[সুবর্ণা বর্তমানে শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের পল্লীসমাজ উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিতব্য লীলাবতী চলচ্চিত্রে কাজ করছেন।

দীর্ঘদিন সাংস্কৃতিক অঙ্গনে দৃপ্ত পদচারণার পর সুবর্ণা মুস্তফা নাম লিখিয়েছেন রাজনীতির ঘরে। তিনি ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন এ বিজয়ী ও ক্ষমতাসীন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এর সংরক্ষিত মহিলা আসন-৪ (৩০৪), ঢাকা-২২ থেকে সুবর্ণা মুস্তফাকে মনোনয়ন ও চূড়ান্তভাবে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়।

সুবর্ণা অভিনেতা হুমায়ুন ফরীদির সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন।
দীর্ঘ ২২ বছর সংসার করার পর ২০০৮ সালে ফরীদির সাথে তার বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। পরবর্তীতে তিনি বদরুল আনাম সৌদকে বিয়ে করেন।

সূর্বনা মুস্তফা অভনিত চলচ্চিত্রের তালিকা-
ঘুড্ডি (১৯৮০) – ঘুড্ডি, লাল সবুজের পালা (১৯৮১) – নীলা, নতুন বউ (১৯৮৩), নয়নের আলো (১৯৮৪) – নয়ন
সুরুজ মিয়া (১৯৮৫) – নোলকি, একা একা – বিনু, কোথাও কেউ নেই – মুনা, ফুলের মালা, স্ত্রী অপহরণ
শঙ্খনীল কারাগার (১৯৯২) – রুনু, কমান্ডার (১৯৯৪) – মুক্তি, পালাবি কোথায় (১৯৯৭) – শিরিন, আজ রবিবার (১৯৯৯) – মীরা, ফাঁসি, রাক্ষস, প্রাইভেট ডিটেকটিভ (২০০৫) – নিশা, দূরত্ব (২০০৬), খণ্ড গল্প ৭১ (২০১১) – সূর্যের ফুফু, হেডমাস্টার (২০১৪), আঁখি ও তার বন্ধুরা (২০১৭) – ডঃ রাইসা, গহীন বালুচর (২০১৭) – আসমা।

আমি এই দেশবরেণ্য গুনি শিল্পীর দীর্ঘায়ূ ও সুস্বাস্থ্য কামনা করি আমিন।

——– বরিশাল বিভাগ
জেলা, মহানগর ও উপজেলা পর্যায়ে দেশের বিভিন্ন অঙ্গনের জাতীয় আলোকিত ব্যক্তিত্বের জীবনী পরিচিতি লেখার ধারাবাহিকতায় এবার দেশের জননন্দিত জনপ্রিয় অভিনেত্রী জনাবা সুর্বনা মোস্তফা’র সম্পর্কে কিছু তথ্য আপনাদের নিকট তুলে ধরার চেষ্টা করেছি মাত্র।

—– জাহিদুল ইসলাম মামুন, প্রকাশক ও সম্পাদক
“বরিশাল বিভাগ তথ্য হ্যালো গাইড”-২০২১
01703644666 01956343323


আপনার মতামত লিখুন :

Comments are closed.

এ জাতীয় আরও খবর
Theme Customized By Theme Park BD
x
%d bloggers like this:
x
%d bloggers like this: