রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৪:২৪ অপরাহ্ন

মুর্তির পায়ের কাছে কোরআন রাখা নিয়ে উত্তেজনা

এখনই সময় ডেস্ক / ৬১
আপডেট : বুধবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২১, ১০:০৮ পূর্বাহ্ণ

কে এম ইউসুফ :: কুমিল্লা শহরের নানুয়া দীঘির উত্তরপাড় পূজা মন্ডপে প্রকাশ্যে কুরআনে কারিমকে মূর্তির পায়ে রেখে অসম্মান করা হয়েছে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় সাধারণ জনতার ক্ষোভ বাড়তে থাকে। পরবর্তীতে কুমিল্লা জেলা এসপি, ডিসি, পূজা কমিটি ও উলামায়ে কেরাম বৈঠকে বসে। বৈঠকে পূজা কমিটিও এতে সম্মত হয় যে এই ঘটনার কারনে অন্তত এই বছর পূজা বন্ধ করে দেওয়া হবে। তবে কয়েকজন চাচ্ছে পূজা স্বাভাবিকভাবে চালিয়ে যেতে।

ষ ক্ষোভ বাড়তে থাকে। বেলা যতই বাড়ছে— সাধারন মানুষের সমাগম ততই বাড়ছিলো। অবশেষে পূজা মন্ডপ এরিয়ার চতুর্দিকে সহস্রাধিক জনতা জড়ো হয়ে যায়৷

এতো বড় অপরাধের পরও পূজা বন্ধ না করে চালিয়ে যাবার ধৃষ্টতা দেখাতে চায় কেউ কেউ। উপস্থিত উলামায়ে কেরাম সাধারণ জনতাকে শান্ত করার চেষ্টা করতে থাকেন’ বলে খবরে প্রকাশ।

পূজা বন্ধ না করে চালিয়ে যাবার কারনে সাধারণ জনতার উত্তেজনা বাড়লে অবশেষে সেখানে পুলিশ গুলি করে। পুলিশের গুলিতে সাধারণ কিছু লোকজন আহত হয়েছে।

কুরআনে কারিমের অপমান করে এতবড় কান্ড ঘটানোর পরও পূজা মন্ডপের পূজা এবছর হলেও বন্ধ না করে উল্টো ক্ষোভরত জনতার উপর পুলিশি হামলার নিন্দা জানানোর ভাষা জানা নেই।

আজকে যদি কোনো মাসজিদের ভিতরে হিন্দু ধর্মীয় মূর্তি পোড়া হতো!
আদৌ সেই মাসজিদে নামাজ পড়ার অনুমতি হতো কিনা সেটা সন্দেহ

মূর্তির পা থেকে কুরআন শরিফ ওসি সাহেব নিজে এসে তুলি নিয়ে যান। যা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক লাইভে বেশ ভাইরাল হয়েছে।
ছবি : সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক হতে সংগৃহিত।


আপনার মতামত লিখুন :

Comments are closed.

এ জাতীয় আরও খবর
Theme Customized By Theme Park BD
x
%d bloggers like this:
x
%d bloggers like this: